শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ১২:২৬ পূর্বাহ্ন

কুমিল্লাকে ১৪১ রানে থামাল বরিশাল

স্পোর্টস ডেস্ক ,চলতি বিপিএলের প্লে-অফ থেকে হাত ছোঁয়া দুরত্বে ফরচুন বরিশাল। শেষ চারের টিকিট পেতে তাদের দরকার মাত্র একটি জয়। সেই জয়ের আশাতেই কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মুখোমুখি হয়েছে তামিম ইকবালের দল। গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে আজ শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) কুমিল্লাকে বেশি দূর যেতে দেয়নি বরিশাল। শেষ চারে যেতে তামিমদের সামনে লক্ষ্য মাত্র ১৪১ রানের।

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ম্যাচটিতে টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে স্কোরবোর্ডে ১৪০ রান তুলেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৮ রান এসেছে জাকের আলির ব্যাট থেকে।

আজ শেষ হতে যাচ্ছে বিপিএলের গ্রুপ পর্ব। এরই মধ্যে প্লে-অফের তিনটি জায়গা নিশ্চিত। দলগুলো হলো— রংপুর রাইডার্স, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। বাকি একটি জায়গা নিয়েই লড়াইটা বরিশাল ও খুলনা টাইগার্সের মাঝে। যদিও, বরিশাল অনেকটা প্লে-অফে পা দিয়েই রেখেছে।

তবে, কুমিল্লার বিপক্ষে জয়টি অফিশিয়ালি তাদের জায়গা নিশ্চিত করার ম্যাচ। এমন ম্যাচে টসে জিতে বোলিং বেছে নেন বরিশালের অধিনায়ক তামিম। বোলিংয়ের শুরুটাও নিয়ন্ত্রিতই করে বরিশাল। ওপেন করতে নামা সুনিল নারিনকে টিকতে দেননি বেশিক্ষণ। কুমিল্লার দলীয় ২৪ রানে বিদায় করেন নারিনকে। সৌম্যের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে নারিনের ব্যাট থেকে আসে ১৬ রান। এরপর লিটন দাসকেও থিতু হয়ে দেয়নি বরিশাল। সপ্তম ওভারে এসে কুমিল্লার অধিনায়ককে বোল্ড করেন তাইজুল ইসলাম।

দুই বাউন্ডারিতে ১২ বলে ১২ রান যোগ করে ফেরেন লিটন। এরপর চারে নামা মাইদুল ইসলাম অঙ্কনকেও নিজের শিকার বানান তাইজুল। মাত্র ৪০ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় কুমিল্লা।

মঈন আলি ও তাওহিদ মিলে সেই বিপদ কাটাতে চেষ্টা করেন। কিন্তু থিতু হয়ে আগ্রাসী হওয়ার আগেই এই জুটি ভাঙেন ম্যাকয়। ২৫ রান করা তাওহিদকে জাবেদের ক্যাচ বানিয়ে ফেরান ম্যাকয়। দ্রæত উইকেট হারানোর পাশাপাশি কমতে থাকে কুমিল্লার রানের গতি। এই রান বাড়াতে বড় আস্থার নাম ছিলেন দুই বিদেশি তারকা মঈন ও আন্দ্রে রাসেল। কিন্তু, আশার আলো হয়ে জ্বলার আগেই এই জুটি ভাঙেন জাবেদ। মঈনকে নিজের শিকার বানিয়ে ১০ রানের বেশি জুটি বড় হতে দেননি তিনি। ২২ বলে ২৩ রান করে ফেরেন ইংলিশ তারকা।

পরের শিকারটি তাইজুলের। নিজের দ্বিতীয় স্পেলে এসে ভাঙেন আন্দ্রে রাসেলের স্টাম্প। বোল্ড হওয়ার আগে ১১ বলে ১৪ রান করেন কুমিল্লার এই বিদেশি তারকা। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানোর মিছিলে বেশিদূর যেতে পারেনি কুমিল্লা। বরিশালের দাপুটে বোলিংয়ের সামনে থমকে যায় মাত্র ১৪০ রানে। শেষ দিকে জাকের আলি নেমে কিছুটা লড়াইয়ের পুঁজি এনে দেন।

দিনের অন্য ম্যাচে আজ মুখোমুখি হবে খুলনা টাইগার্স। প্রতিপক্ষ সিলেট স্ট্রাইকার্স। যাদের বিদায় নিশ্চিত হয়েছে আগেই। শেষ ম্যাচটি তাদের শুধুই নিয়মরক্ষার। অপেক্ষাকৃত এই দুর্বল দলকে পেয়েছে বলেই কি না, কিছুটা স্বপ্ন অন্তত দেখতেই পারে খুলনা। তবে, রানরেট তাদের খুব একটা স্বস্তি দিচ্ছে না।

তামিম ইকবালের বরিশালের নেট রানরেট +.৪৩৪। আর বিজয়ের খুলনার নেট রানরেট -.৪০০। প্লে-অফে যেতে পয়েন্ট সমান করার পর রানরেটেও বরিশালকে টপকাতে হবে খুলনার। এদিকে, বরিশালকেও হারতে হবে কুমিল্লার কাছে। সবমিলিয়ে দিনের প্রথম ম্যাচেই আজ নির্ধারণ হয়ে যাচ্ছে কে যাচ্ছে প্লে-অফে। কারণ, পয়েন্ট টেবিলে বরিশালের পয়েন্ট ১২ আর খুলনার পয়েন্ট ১০। কুমিল্লাকে হারালেই সরাসরি সুপার ফোরে উঠে যাবে তামিম ইকবালের দল।

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.