শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০২:৩৮ পূর্বাহ্ন

খবরের শিরোনাম:
ফেব্রুয়ারির পরিবর্তে ডিসেম্বরে এসএসসি পরীক্ষা থাইল্যান্ডে আন্তর্জাতিক যুব সম্মেলনে যাচ্ছেন যুব নেতা হোসাইন জীবিতদের মৃত দেখিয়ে ভাতা থেকে বাদ দিলেন চেয়ারম্যান অবৈধভাবে ব্যালটে সিল মারার অভিযোগে, প্রিজাইডিং অফিসারসহ গ্রেফতার ০২ নবীগঞ্জের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অভিযানে ইয়াবা ও গাঁজাসহ ২ জন গ্রেপ্তার। আজ বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব বুদ্ধ পূর্ণিমা আজমিরীগঞ্জে ৩৯ লিটার চোলাই মদসহ বিক্রেতা সুনিল গ্রেফতার কলকাতার একটি হোটেল পড়ে ছিলো এমপি আনারের লাশ বাহুবল উপজেলা আনেয়ার হোসেন চেয়ারম্যান নির্বাচিত কামরুল ইসলাম ও রিতা ভাইস চেয়ারম্যান নবীগঞ্জে আওয়ামিলীগের হেভিওয়েটদের হারিয়ে বিজয়ী বিএনপির মুজিবুর রহমান

গোপায়া ইউনিয়ন বিএনপির সম্মেলনে জি কে গউছ গণতন্ত্র হত্যা করে মানুষের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে

ইশতিয়াক শোভনঃ বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ও টানা ৩ বারের নির্বাচিত হবিগঞ্জ পৌরসভার পদত্যাগকারী মেয়র আলহাজ্ব জি কে গউছ বলেছেন- আওয়ামীলীগ যখনই রাষ্ট্র ক্ষমতায় গিয়েছে দেশে একদলীয় শাসন কায়েম করেছে। গণতন্ত্র হত্যা করে মানুষের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। ঘুম, খুন আর বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ডের মাধ্যমে বিরোধীদলকে দমনের চেষ্টা করেছে। রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে মানুষের বাক-স্বাধীনতা হরণ করেছে। তাই দেশের মানুষ আওয়ামীলীগকে রাষ্ট্র ক্ষমতায় দেখতে চায় না। আওয়ামীলীগ জনবিচ্ছিন্ন একটি রাজনৈতিক দল। দেশে একটি সুষ্ঠ নির্বাচন হলে আওয়ামীলীগের অস্তিত্ব খোঁজে পাওয়া যাবে না।
তিনি গতকাল শনিবার বিকালে সদর উপজেলার ৫নং গোপায়া ইউনিয়ন বিএনপির সম্মেলনে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
জি কে গউছ বলেন- বাকশাল থেকে দেশের মানুষকে মুক্ত করে বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছিলেন শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান। স্বৈরাচার এরশাদের পতন নিশ্চিত করে দেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করেছিলেন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। আপোষহীন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এখনও গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করছেন। নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য আন্দোলন করছেন। কিন্তু এই আন্দোলনকে দমিয়ে রাখতে এবং অবৈধভাবে ক্ষমতায় ঠিকে থাকতে আওয়ামীলীগ রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে কারাবন্দি করেছে। সরকারের এই অবিচার ও জুলুম থেকে খালেদা জিয়া মুক্ত করতে হলে এবং দেশের মানুষের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনতে হলে আন্দোলনের বিকল্প নেই। বিএনপি নেতা শাহিন জাহানের সভাপতিত্বে ও শাহিনুর রহমান শাহিনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মিজানুর রহমান চৌধুরী, এডভোকেট হাজী নুরুল ইসলাম, হাজী এনামুল হক ও এডভোকেট মোঃ এনামুল হক সেলিম, সদর উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক প্রফেসর এনামুল হক, সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক আজিজুর রহমান কাজল, জেলা বিএনপির সদস্য মহিবুল ইসলাম শাহীন, শামছুল ইসলাম মতিন, তাজুল ইসলাম চৌধুরী ফরিদ, সদর উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ আজম উদ্দিন, এডভোকেট আফজাল হোসেন, এম এ মন্নান, পৌর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক নাজমুল হোসেন বাচ্চু, জেলা যুবদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জহিরুল ইসলাম সেলিম, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সফিকুর রহমান সিতু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম কাওছার, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক টিপু আহমেদ, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাফিজুল ইসলাম, শেখ আজিজুর রহমান।
সম্মেলনে গোপন ব্যালটে হাফিজুল ইসলাম খান সভাপতি, মোঃ আব্দাল মিয়া সিনিয়র সহ-সভাপতি, শাহিনুর রহমান শাহিন সাধারণ সম্পাদক, মোঃ নুরুল ইসলাম যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মীর কামরুজ্জামান রুবেল সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হন।

 

 

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.