রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ০২:১৩ অপরাহ্ন

গ্যাস নিতে রাস্তা দখল অটোরিকশার

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি মৌলভীবাজার জেলার গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন সড়কে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকে সিএনজি চালিত অটোরিকশা। সিএনজি স্টেশনের জায়গা কম থাকায় গ্যাস নিতে রাস্তা দখল করায় সৃষ্টি হয় যানজট, মানুষজনের চলাচলে হয় অসুবিধা, ঘটে দুর্ঘটনা।সরেজমিন মৌলভীবাজার-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের রাজনগর পয়েন্ট, মৌলভীবাজার- চাতলা সীমান্ত সড়কের মাতারকাপন ও শহরের জগন্নাথপুর ও কুসুমবাগ এলাকায় দেখা যায় এ চিত্র। ফলে প্রতিনিয়ত যানজট লেগেই থাকে ঘটছে ছোট বড় দুর্ঘটনা। যাত্রী এবং সচেতন মহলের দাবি প্রশাসনের উচিত পাম্প মালিক ও সিএনজি সমিতির সঙ্গে আলাপ করে এর সুরাহা করার।

পথচারীদের অভিযোগ রয়েছে অনেক সিএনজি স্টেশনের নিজস্ব পার্কিং না থাকা ও গাড়ি চালকদের অসচেতনতাই যানজটে মূল কারণ।শহরের কুসুমবাগ, শ্রীমঙ্গলরোড, শমসেরনগর রোড, কুলাউড়ারোডের বিভিন্ন সিএনজি স্টেশন ঘুরে দেখা যায়, প্রতিটা স্টেশনের বাইরের মূল সড়ক জুড়ে সিএনজি অটোরিকশার দীর্ঘ লাইন। কয়েকজন সিএনজি চালক জানান, সময় মতো গ্যাস না পাওয়ায় তারা দীর্ঘক্ষণ গাড়ি নিয়ে সড়কে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়।

সিএনজি চালক জয়নাল মিয়া বলেন, মাসখানেক পূর্বেও একটি নির্দিষ্ট সময়ে আমরা সিএনজি স্টেশনে গ্যাস নিতে পারতাম। এখন প্রায়ই গ্যাসের চাপ কম, অনেক সময় স্টেশনে গ্যাস থাকে না। কখন গাড়িতে গ্যাস পাবো, সেই আশা বসে থাকতে হয়।সিএনজি চালক এখলাছ মিয়া জানান, আমরা যারা গ্যাস নিতে এখানে আসি তারা নিজ উদ্যোগেই রাস্তায় লাইন ধরি। পাশাপাশি অন্য গাড়ি ও মানুষজনের চলাচলে যাতে কোনো যানজট তৈরি না হয় সেদিকেও খেয়াল রাখি।শহরের একটি সিএনজি স্টেশনের ম্যানেজার নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, আমাদের নিজস্ব পার্কিং রয়েছে। তারপরও অনেক সময় অতিরিক্ত গাড়ি এসে পড়লে গাড়ির লাইন মূল সড়কে চলে যায়। ইদানীং সিএনজির সংখ্যা এ জেলায় অনেক বেড়ে যাওয়াও এর কারণ।

এ বিষয়ে রাজনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রিয়াঙ্কা পাল জানান, গ্যাস পাম্পের সামনে রাস্তার ওপরে দীর্ঘ গাড়ির সারি থাকে তা নজরে এসেছে। সিএনজি  চালক সমিতি ও পাম্প মালিকদের সঙ্গে কথা বলে শিগগিরই এর সমাধান করা হবে। পাশাপাশি স্থানীয় থানাকেও অবগত করা হবে।মৌলভীবাজার রাজনগর উপজেলার কলেজ পয়েন্টে রাস্তার ওপর দাঁড়িয়ে সিএনজি চালিত অটোরিকশা

 

 

 

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.