রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০১:০৫ পূর্বাহ্ন

চুনারুঘাটে ৩ লক্ষ জাল টাকাসহ গ্রেফতার ১

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে ৩ লক্ষ জাল টাকাসহ একজন পেশাদার প্রতারককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন(র‌্যাব)-৯। এ সময় তার কাছ থেকে ৩’শ টি ১ হাজার টাকার জব্দ করা হয়। জব্দকৃত জাল নোট মোট ৩ লক্ষ টাকা রয়েছে ।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শ্রীমঙ্গল ক্যাম্প মৌলভীবাজারের একটি অভিযানিক দল মঙ্গলবার হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট থানাধীন দেওর গাছ ইউনিয়নের কাচুয়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে বাংলাদেশী ৩ লক্ষ জাল টাকাসহ একজন পেশাদার প্রতারককে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট থানার গোবরখলা এলাকার বাসিন্দা মৃত সিরাজ মিয়ার ছেলে মোঃসফিকুর রহমান(৫৫)।

গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানা যায় যে, একটি সংঘবদ্ধ চক্র দীর্ঘ দিন যাবৎ সীমান এলাকা থেকে জাল টাকা সংগ্রহ করে সিলেট বিভাগের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষের কাছে ছড়িয়ে দেওয়ার মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৯ জাল টাকাসহ প্রতারকদের গ্রেফতার করার ব্যাপারে গোয়েন্দা তৎপরতা জোরদার করে এবং প্রাপ্ত গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে পেশাদার প্রতারক মোঃ সফিকুরর রহমানকে জাল টাকাসহ গ্রেফতার করা হয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদে জানাযায় যে, ঈদ পূর্ববর্তী সময়ে এই প্রতারকচক্র বিশেষ ভাবে সক্রিয় থাকে। গ্রেফতারকৃত প্রতারক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের লক্ষ্যে বস্তু বানাতো এবং জাল টাকা বাজারে ছড়িয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে চক্রটি প্রতি ১ লক্ষ জাল টাকা ১৫ হাজার টাকায় বিক্রি করতো। চক্রের অন্যান্য সদস্য এবং যেকোন পর্যায়ে জাল টাকার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে র‌্যাব-৯ এর চলমান গোয়েন্দা নজরদারী এবং অভিযান অব্যহত থাকবে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত প্রতারকের বিরুদ্ধে গত ২০১১সালের অক্টোবর মাসে ঢাকার শেরেবাংলানগর থানা এবং গুলশান থানায় পৃথক দুটি প্রতারণা মামলা রয়েছে। এছাড়াও চুনারুঘাট থানায় তার বিরুদ্ধে ২০১৯ সালের মার্চ এবং মে মাসে যথাক্রমে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০১৮ এবং ডাকাতির প্রস্তুতির অভিযোগে পৃথক দুটি মামলা রয়েছে। পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য গ্রেফতারকৃত প্রতারকের বিরুদ্ধে ১৯৭৪ সনের বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.