মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪১ অপরাহ্ন

খবরের শিরোনাম:
শায়েস্তাগঞ্জ ইন্টারনেট ব্যবসা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষ, আহত অর্ধশতাধিক ভিডিওকলে মাধবপুরের রেহানাকে বাঁচানোর আকুতি, ‘আমি আর সহ্য করতে পারতেছি না’ মৌলভীবাজারে চা-শ্রমিকের ছেলের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার নবীগঞ্জ উপজেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির মাসিক সভায় এমপি কেয়া চৌধুরী আড়াই কোটি টাকার সার-বীজ বিনামূল্যে বিতরণ সার চাওয়ায় কৃষকদের হত্যা করে বিএনপি -এমপি আবু জাহির উপজেলা নির্বাচনে নবীগঞ্জে ১৯ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা নিয়মিত খেলাধূলা আয়োজনে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে-এমপি আবু জাহির দেশে হিটস্ট্রোকে আরও ৩ জনের মৃত্যু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ব্যাটারি কমপ্লেক্স উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৯ জন প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল

টলিউড অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ আটক

ডেস্ক রিপোর্ট যুব তৃণমূলের সভাপতি ও টলিউড অভিনেত্রী সায়নী ঘোষকে আটক করেছে পুলিশ। ত্রিপুরার পোলো হোটেল থেকে স্থানীয় পুলিশ তাকে আটক করেন। বর্তমানে থানায় রয়েছেন তিনি।

হিন্দুস্তান টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, শনিবার রাতে প্রচার সেরে হোটেলে ফিরছিলেন তৃণমূল নেত্রী সায়নী ঘোষ। গাড়িতে চালকের পাশের আসনে বসেছিলেন তিনি। এ সময় যানজটে আটকে যায় তার গাড়ি। গাড়ির পেছনের আসনে বসেছিলেন প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ অর্পিতা ঘোষ ও সুদীপ রাহা। গাড়িটি যানজটে আটকে যাওয়ায় আশেপাশের লোকেরা সায়নীকে দেখে হাত নাড়েন ও ‘খেলা হবে’ স্লোগান দিতে থাকেন। তৃণমূল নেতা-নেত্রীরাও পাল্টা স্লোগান দিতে থাকেন।

পুলিশের অভিযোগ, ঠিক তখনই নাকি সায়নীর গাড়ির ধাক্কায় এক ব্যক্তি আহত হন। সেই সূত্র ধরেই রোববার (২১ নভেম্বর) পুলিশ তৃণমূল নেতা-নেত্রীদের হোটেলে হানা দেয়। সায়নীসহ বাকি তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে কথা বলেন পুলিশ। কিন্তু তাতেও সমস্যা মেটেনি। সায়নীসহ প্রত্যেককেই থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

সায়নী ঘোষ থানায় ঢোকার পরই থানা লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টির অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। তৃণমূল নেতা সুবল ভৌমিকের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। হেলমেট পরে লাঠি হাতে আক্রমণ চালানোর অভিযোগ উঠেছে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে।

এদিকে কোনো নোটিশ ছাড়াই সায়নীকে থানায় নিয়ে যাওয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে তৃণমূল। তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ জানান, এটা বিজেপির দেউলিয়াপানা। তাই এসব করছে। এর আগে আগরতলায় তৃণমূলের সভায় মাইক ও আলো বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ ওঠেছিল।

কিছুদিন আগে আগরতলা পৌরসভার ইন্দ্রনগরে ১০ নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূল প্রার্থী পান্না দেবের সভায় প্রচার করতে এসেছিলেন তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিম ও বাবুল সুপ্রিয়। সভা বানচাল করে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। এর আগে তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষের বিরুদ্ধেও একাধিক মামলা দায়ের করা হয়।

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.