বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০:২২ অপরাহ্ন

নরসিংদীর বেলাব শীতকালীন শাক-সবজির ব্যাপক চাষাবাদ কৃষকের মনে উৎসবের আমেজ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ নরসিংদীর বেলাব জুড়ে চলছে শীতকালীন শাক-সবজির ব্যাপক চাষাবাদ। জমিতে নতুন ফসল লাগানো, পরিচর্যা ও ফসল সংগ্রহের বিক্রি এ ত্রিমুখী কাজে ব্যস্ত কৃষক।
একদিকে আগাম জাতের সবজি উঠছে অন্যদিকে সিজনাল সবজি রোপণ ও লাগানো হচ্ছে। কোনো কোনো এলাকায় আগাম মূলা, সিম, কপি, লাউ, কাকরল এসব সবজি তোলার ধূম পড়েছে। আগাম জাতের এ সবজিগুলো বিক্রি করে লাভবান কৃষক। নতুন উদ্যমে অবশিষ্ট জমিতে করছে নতুন নতুন সবজি চাষ। কৃষকের মনে উৎসবের আমেজ।
কার্তিক মাসের কুয়াশা ভেজা সকালে শীতের আগমনী বার্তা বইছে। ঠিক এরই মধ্যে উপজেলার সর্বত্র শুরু হয়েছে শীতকালীন সবজি আবাদ। অনুকূল আবহাওয়ায় সবজির উৎপাদন ভালো হওয়ায় ও বাজার দর ভালো থাকায় লাভবান হবেন চাষিরা। বর্তমানে বাণিজ্যিকভাবে সবজি চাষ হওয়ায় শুধু নিজেদের চাহিদাই নয়, দেশ ছাপিয়ে বিদেশেও রফতানি হচ্ছে এ অঞ্চলের সবজি। নতুন সবজিতে সবুজে সবুজে ভরে উঠছে মাঠ।
বিস্তীর্ণ মাঠ জুড়ে এখন শোভা পাচ্ছে সারি সারি শিম, ফুলকপি, বাঁধাকপি, লাউ, শিম, বেগুন, মূুলা, করলা, পটল, পালং ও লালশাকসহ হরেক রকমের শীতকালীন সবজি। উঠতি এ সবজি তে মাঠগুলো যেন সবুজের বাগান। মাঠে মাঠে এসব ফসল পরিচর্যায় এখন ব্যস্ত কৃষকরা। কাক ডাকা ভোরে কোদাল, নিড়ানি, বালতি, স্প্রে মেশিন ইত্যাদি নিয়ে বেরিয়ে পড়ছেন কৃষকরা। জমিতে নিড়ানি, পানি দেওয়া, সার প্রয়োগ, কীটনাশক, ফসফেট দেওয়াসহ বিরতিহীন সকাল থেকে বিকেল অবধি কাজ শেষে বাড়ি ফিরছেন তারা। এত পরিশ্রমের পরও হাসিমুখে স্বপ্ন বুনছেন সোনালি ভবিষ্যতের।
বেলাব উপজেলার বারৈচা গ্রামের কৃষক ফজলুর রহমান বলেন, কম জমিতে অল্প মূলধনে সবজি চাষ করা যায়। পরিশ্রমও তুলনামূলক কম। তবে সেবায় ক্রটি করা যাবে না। কিন্তু রোগবালাই দমনে সবজিতে কীটনাশক বেশি প্রয়োগ করতে হয়। স্বল্প সময়েই সবজি বিক্রয় উপযোগী হয়ে ওঠে।
ভাবলার কৃষক সুশীল দাস বলেন, আগাম জাতের কিছু সবজি এবং সিজনাল সবজি ফলিয়েছি। মনে আনন্দ পাচ্ছি কারণ আগাম সবজি বিক্রি করে এরই মধ্যে বেশ লাভবান হয়েছি। তাই আরো উদ্যম নিয়ে কাজ করতে আনন্দ পাচ্ছি।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নাজিম উর রউফ খান বলেন, শীতকালীন সবজি চাষের উচ্চ ফলনশীল নতুন নতুন জাত আসায় এ আবাদে লাভবান হচ্ছেন চাষিরা। গত বছরের তুলনায় এবার সবজি চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে বলে আশা করছি। চাষ পদ্ধতি, ভালো জাত ও রোগ বালাইসহ বিভিন্ন বিষয়ে কৃষকদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ সহায়তা দিচ্ছেন স্থানীয় কৃষি বিভাগ।
তিনি আরো জানান, উৎপাদিত সবজি জেলার সবজি চাহিদা মিটিয়ে ঢাকাসহ দেশের অন্য জেলাতে সরবরাহ করা হবে।

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.