রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০১:৩৮ পূর্বাহ্ন

পুলিশকে জনবান্ধব হিসেবে গড়ে তুলতে আব্দুল মজিদ খান এমপি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সারাদেশের ন্যায় হবিগেঞ্জের বানিয়াচংয়ে কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২১ ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা ও বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

‘মুজিববর্ষে পুলিশ নীতি জনসেবা আর সম্প্রীতি’ এ প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে শনিবার (৩০ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৯টায় থানা চত্বরে অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ এমরান হোসেনের সভাপতিত্বে ও এসআই শামসুল ইসলামের সঞ্চালনায় আলোচনা সভা ও র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বেসরকারি সদস্যদের বিল এবং বেসরকারি সিদ্ধান্ত প্রস্তাব সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ খান এমপি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আবুল কাশেম চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার পদ্মাসন সিংহ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আমির হোসেন মাস্টার ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হাসিনা আক্তার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন- উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিপুল ভূষণ রায়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আব্দুল মজিদ খান এমপি বলেন, সারাদেশে একযোগে কমিউনিটি পুলিশিং-ডে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আমরা অনেক সময় পুলিশের অহেতুক সমালোচনা করে থাকি। কিন্তু দুঃসময়ে পতিত হলে যখন কাছের স্বজনরা পর্যন্ত দূর চলে যায়, সেই সময় মানুষের পাশে দাঁড়ায় পুলিশ। পুলিশকে জনবান্ধব হিসেবে গড়ে তুলতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ বাহিনীকে ঢেলে সাজিয়েছেন। এরই অংশ হিসেবে পুলিশ বাহিনীতে জবাবদিহিতা এসেছে। ফলশ্রুতিতে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরান হোসেন পরপর ২ বার জেলার শ্রেষ্ঠ ওসি হয়েছেন। এজন্য তাঁকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, আমাদেরকে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে। পুলিশের পেশা হচ্ছে অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং পেশা। শুধু পুলিশের একার পক্ষে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা সম্ভব নয়। কারণ প্রতি থানায় সীমিত সংখ্যক পুলিশ থাকে অন্য দিকে বিশাল এলাকার অসংখ্য মানুষকে সামাল দেয়া খুব কঠিন। তাই জনগণের সহযোগিতার হাত প্রসারিত করতে হবে, পুলিশ বাহিনীকে সাহায্য করতে হবে। পুলিশের কিছু বিতর্কিত সদস্যদের কারণে মাঝে মাঝে পুলিশের দুর্নাম হয় সে বিষয়ে পুলিশ কে আরো বেশি সতর্ক থাকার আহ্বান জানান।

আব্দুল মজিদ খান এমপি বলেন, হত্যা, সন্ত্রাস, গুজব, মাদক, জুয়াসহ বিভিন্ন অপরাধ দমনে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পুলিশকে কাজ করতে হয়। দুষ্কৃতিকারীরা রাজনৈতিক ফায়দা নিতে গিয়ে অনেক সময় বিভিন্ন অপরাধ ঘটিয়ে থাকে। অপরাধ বন্ধ এবং অপরাধীদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশ বদ্ধপরিকর। এ ক্ষেত্রে আমাদেরকে প্রত্যেকের অবস্থান থেকে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করতে হবে এবং পৃথিবীর সবচেয়ে বড় গ্রামের মানুষ হিসেবে বড় মনের অধিকারিও হতে হবে।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া লিলু, চেয়ারম্যান আব্দুল আহাদ, মো. শাহজাহান মিয়া, ইমাম সমিতির সভাপতি কাজী মুফতি আতাউর রহমান, উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি এস এম খোকন, বানিয়াচং মডেল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শিব্বির আহমদ আরজু, ইউপি চেয়ারম্যান ওয়ারিশ উদ্দিন খান, মো. রেখাছ মিয়া, মো. হাবিবুর রহমান, এরশাদ আলী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এজেড এম উজ্জল ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম চৌধুরী রিপন প্রমুখ।

র‌্যালী ও আলোচনা সভায় গণমাধ্যমেরকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.