রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৫৩ পূর্বাহ্ন

পেরুকে ১-০ গোলে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ পেরুর বিপক্ষে আর্জেন্টিনার গুরুত্বপূর্ণ জয় দেখতে আজ হাজির হয়েছিলেন লাওতারো মার্তিনেজের পরিবারের বেশ কিছু সদস্যও। ঘরের ছেলে লাওতারো হতাশ করেননি তাঁদের।

লাওতারোর দুর্দান্ত এক গোলেই পেরুকে আজ ১-০ গোলে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা। পকেটে পুরেছে মহামূল্যবান তিন পয়েন্ট। গোলটা যেন আক্ষরিক অর্থেই ইতালিয়ান লিগের উপহার ছিল আর্জেন্টিনা দলের প্রতি। গোলে সহায়তাকারী নাহুয়েল মলিনাও খেলেন ইতালিয়ান ক্লাব উদিনেসের হয়ে, আর লাওতারো তো ইন্টারের হয়ে খেলেনই।

ডানপ্রান্ত থেকে মলিনার দুর্দান্ত এক ক্রসে পাকা গোলশিকারির মতো মাথা ছুঁইয়ে ম্যাচের ৪২ মিনিটে আর্জেন্টিনাকে এগিয়ে দেন মার্তিনেজ। ওই একটা গোলই যথেষ্ট ছিল পূর্ণ তিন পয়েন্ট অর্জন করার জন্য। পরিবারের সামনে গোল করতে পারার ব্যাপারটাও বেশ তৃপ্তি দিয়েছে এই স্ট্রাইকারকে।

ম্যাচ শেষের সাক্ষাৎকারে লাওতারোর কথায় সেটাই ফুটে উঠেছে, ‘প্রত্যেকবার এই জার্সি গায়ে আমরা যখন মাঠে নামি, আমরা আমাদের সবটুকু দেওয়ার চেষ্টা করি কারণ এই জার্সির সম্মান আর দায়িত্ব প্রাপ্য। অনেক দিন পর আমার পরিবার আমাকে সামনা সামনি খেলতে দেখতে পেরেছে আজ। আজ তাঁরা মাঠে এসেছে। আমি আশা করব তাঁরা আজ বেশ খুশি হয়েছে, আর্জেন্টিনার অন্যান্য দর্শকদের মতো।’

এই নিয়ে টানা ২৫ ম্যাচ অপরাজিত থাকল আর্জেন্টিনা। তবে এই ম্যাচেও পূর্ণ তিন পয়েন্ট পাওয়া হবে না, এমন শঙ্কা পেয়ে বসেছিল আর্জেন্টিনা দলকে। দ্বিতীয়ার্ধে ৬৬ মিনিটে আর্জেন্টিনার গোলকিপার এমিলিয়ানো মার্তিনেজ ফাউল করে বসেন পেরুর এক খেলোয়াড়কে। সেখান থেকে পেনাল্টি পায় পেরু। কিন্তু সে সুযোগটা কাজে লাগাতে পারেনি তাঁরা। মিডফিল্ডার ইয়োশিমার ইয়োতুন বল মারেন ক্রসবারে। সব মিলিয়ে লাওতারোর গোলটাই যথেষ্ট ছিল আর্জেন্টিনার জন্য।

আগের ম্যাচেই আর্জেন্টিনা খেলেছিল উরুগুয়ের বিপক্ষে। সে ম্যাচের তুলনায় এই ম্যাচটা সহজই মনে হয়েছে লাওতারোর কাছে, ‘উরুগুয়ের তুলনায় এই ম্যাচটা সহজ ছিল। আগের ম্যাচের চেয়ে আক্রমণ করার জন্য বেশি জায়গা পেয়েছি আমরা। শেষদিকে ব্যাপারটা একটু কঠিন হয়ে গেলেও আমাদের কাছে সেটারও সমাধান ছিল।’

এই জয় নিয়ে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের পয়েন্ট তালিকায় দ্বিতীয় স্থানেই রইলো আর্জেন্টিনা। উরুগুয়েকে ৪-১ গোলে হারানো ব্রাজিল রয়েছে যথারীতি শীর্ষে। আজ ব্রাজিলের হয়ে জোড়া গোল করেছেন রাফিনহা, একটি করে গোল করেছেন নেইমার ও গাব্রিয়েল বারবোসা।

নিজের খেলা শেষ ৮ ম্যাচে এই নিয়ে ৬ গোল করলেন লাওতারো মার্তিনেজ। কোচ লিওনেল স্কালোনির অধীনে অসাধারণ খেলছেন লাওতারো মার্তিনেজ। ৩৩ ম্যাচে এই নিয়ে ১৭ গোল করা হয়ে গেল তাঁর। স্কালোনির অধীনে কোন স্ট্রাইকার এত বেশি গোল করেননি। আদর্শ স্ট্রাইকারের মতো স্কালোনির চিন্তা দূর করছেন এই ইন্টার তারকা।

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.