মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪১ অপরাহ্ন

খবরের শিরোনাম:
শায়েস্তাগঞ্জ ইন্টারনেট ব্যবসা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষ, আহত অর্ধশতাধিক ভিডিওকলে মাধবপুরের রেহানাকে বাঁচানোর আকুতি, ‘আমি আর সহ্য করতে পারতেছি না’ মৌলভীবাজারে চা-শ্রমিকের ছেলের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার নবীগঞ্জ উপজেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির মাসিক সভায় এমপি কেয়া চৌধুরী আড়াই কোটি টাকার সার-বীজ বিনামূল্যে বিতরণ সার চাওয়ায় কৃষকদের হত্যা করে বিএনপি -এমপি আবু জাহির উপজেলা নির্বাচনে নবীগঞ্জে ১৯ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা নিয়মিত খেলাধূলা আয়োজনে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে-এমপি আবু জাহির দেশে হিটস্ট্রোকে আরও ৩ জনের মৃত্যু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ব্যাটারি কমপ্লেক্স উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৯ জন প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল

প্রাণ কোম্পানীর শ্রমিকের গাড়ী ডাকাতের কবলে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সদর উপজেলার হবিগঞ্জ-নসরতপুর সড়কের দরিয়াপুর এলাকায় ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। গতকাল রবিবার রাত ১০টার দিকে শায়েস্তাগঞ্জের অলিপুর এলাকায় অবস্থিত প্রাণ কোম্পানীর শ্রমিকবাহী একটি মাইক্রোবাস আটকিয়ে ডাকাতরা শ্রমিকদের কাছ থেকে ৬টি মোবাইল ও অর্ধ লক্ষ
টাকা লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় সুজন মিয়া (৩০) নামে এক শ্রমিক ডাকাতদের ব্যবহৃত দুটি গাড়ীর চালককে চিনে ফেলে নাম ধরে ডাক দেয়ায় ডাকাতরা তাকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। গুরুতর অবস্থায় তাকে হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যা আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত ৭ নারী শ্রমিক হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নেয়। সুজন মিয়া হবিগঞ্জ সদর উপজেলার পশ্চিম ভাদৈ গ্রামের আব্দুন নুরের ছেলে।
আহত সুজন মিয়া জানায়, একটি মাইক্রোবাসে করে ১৬ জন শ্রমিক প্রাণ কোম্পানী থেকে হবিগঞ্জ শহরে আসার পথে দরিয়াপুর এলাকায় একটি লাল রঙ্গের কার মাইক্রোবাসের সামনে গিয়ে শ্রমিকবাহী গাড়ীকে আটকে দেয়। পিছলে আর একটি সাদা রঙ্গের মাইক্রোবাস দাড়ানোর পর দুই গাড়ী থেকে ১০/১২জন ডাকাত নেমে এসে শ্রমিকবাহী গাড়িতে রামদা, ছোড়াসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করে লুটপাট শুরু করে। খোকন মিয়া ও অলি মিয়া দুই চালককে আমি ছিনে ডাক দিলে ডাকাতরা আমার মাথা লক্ষ্য করে কুপ দিলে দুটি কুপ কানের পাশে ও হাতের হনায় লেগে গুরুতর জখম হয়।

হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি তদন্ত দৌস মোহাম্মদ জানান, কয়েকজন শ্রমিক এসেছিল। কিন্তু কোন অভিযোগ দেয়নি।

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.