সোমবার, ১৭ Jun ২০২৪, ০১:১৪ পূর্বাহ্ন

‘ফ্রি প্রেস অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সাহসী সাংবাদিকতার জন্য ‘ফ্রি প্রেস অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে কারাভোগ করা প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলাম। নেদারল্যান্ডসভিত্তিক সংগঠন ফ্রি প্রেস আনলিমিটেড মঙ্গলবার এ বছরের ‘ফ্রি প্রেস অ্যাওয়ার্ড’ ঘোষণা করে। রোজিনা এ পুরস্কার পেয়েছেন ‘মোস্ট রেজিলিয়েন্ট জার্নালিস্ট’ শ্রেণিতে। এছাড়া ভারতীয় সাংবাদিক ভাট বুরহান বছরের ‘সেরা নবাগত সাংবাদিক’ ক্যাটাগরিতে এ পুরস্কার পেয়েছেন।
নেদারল্যান্ডসের হেগ শহরের সিটি হলে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় (বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত সোয়া ১২টা) আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে পাকিস্তানের খ্যাতিমান সাংবাদিক হামিদ মীরের হাত থেকে রোজিনা ইসলামের পক্ষে পুরস্কারটি গ্রহণ করেন তাঁর স্বামী মো. মনিরুল ইসলাম। রোজিনা ইসলামের পাসপোর্ট জব্দ থাকায় তিনি পুরস্কারটি নিতে নেদারল্যান্ডস যেতে পারেননি।
মুক্ত সাংবাদিকতা এবং তথ্যের অবাধ প্রবাহ নিশ্চিত করতে লড়াই করা সাংবাদিকদের প্রতিবছর এ পুরস্কার দেয় ফ্রি প্রেস আনলিমিটেড। গত বছর এ পুরস্কার পেয়েছিলেন ফিলিপিন্সের সাংবাদিক মারিয়া রেসা, যিনি এ বছর শান্তিতে নোবেল পেয়েছেন।
ফ্রি প্রেস আনলিমিটেড বলেছে, ‘আমরা দেখেছি, মুক্ত গণমাধ্যম এবং সাংবাদিকরা এখন প্রচ- চাপের মুখোমুখি। এ অবস্থায় বিশ্বব্যাপী সাংবাদিকরা তাদের পেশাগত দায়িত্ব পালনে যে অদম্য সাহস আর নিষ্ঠা দেখিয়েছেন, তাতে আমরা মুগ্ধ।এ বছর ‘মোস্ট রেজিলিয়েন্ট জার্নালিস্ট’ শ্রেণিতে বাংলাদেশের রোজিনা ইসলামকে পুরস্কৃত করার ব্যাখ্যায় ফ্রি প্রেস আনলিমিটেড বলেছে, ‘তিনি তার দেশের স্বাস্থ্য খাতের অনিয়ম প্রকাশ্যে এনেছেন এবং এখন তাকে নিজের দেশে বিচার আর দুর্বিপাকের মুখোমুখি হতে হচ্ছে।রোজিনা ইসলামের পাওয়া পুরস্কারের অর্থমূল্য সাড়ে ৭ হাজার ইউরো, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ৭ লাখ টাকার সমান। সাংবাদিক ভাট বুরহান পেয়েছেন দেড় হাজার ইউরোর (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় দেড় লাখ টাকা) বৃত্তি।
চলতি বছর ১৭ই মে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে প্রায় ছয় ঘণ্টা আটকে রাখার পর রোজিনাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।সরকারি ‘নথি চুরির চেষ্টার’ অভিযোগে অফিসিয়াল সিক্রেটস আইনে মামলা করা হয় তার বিরুদ্ধে। এনিয়ে সাংবাদিকদের ক্ষোভ-বিক্ষোভের মধ্যে ছয় দিন পর জামিনে মুক্তি পান তিনি।’ফ্রি প্রেস অ্যাওয়ার্ড’ এর জুরি বোর্ড বলেছে, ‘মহামারীর এই সংকটের সময়ে অনিয়মের তথ প্রকাশ্যে আনতে সাংবাদিকদের যে লড়াই, তার সঙ্গে আমরা সংহতি প্রকাশ করছি। সেই সঙ্গে রোজিনা ইসলামকে হয়রানি বন্ধ করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.