সোমবার, ১৭ Jun ২০২৪, ০৯:২২ পূর্বাহ্ন

লোহিত সাগরে আরো ৩ জাহাজে হাউছিদের হামলা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ,অবরুদ্ধ গাজায় গত ছয় মাস ধরে চলছে ইসরাইলী বাহিনীর গণহত্যা। ইতোমধ্যে প্রায় ৩৮ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে দখলদার ইসরাইলী বাহিনী। ধ্বংস করে দেয়া ঘর-বাড়িসহ সমস্ত অবকাঠামো। লাখ লাখ মানুষকে বাস্তুহারা করেছে। আহত হয়েছেন লাখ লাখ মানুষ। নিহতদের বেশিভাগ নারী এবং শিশু। এই জগণ্য হামলার প্রতিবাদের ইয়েমেনের বিদ্রোহী সংগঠন হাউছির যোদ্ধারা বার বার লোহিত সাগরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিত্র বাহিনীর জাহাজে হামলা করছে।

জানা যায়, ইসরাইলি আগ্রাসনের শিকার গাজাবাসীর প্রতি সমর্থন জানিয়ে ইসরাইলের সাথে সংশ্লিষ্ট আরো তিনটি জাহাজে হামলা চালানোর কথা ঘোষণা করেছে ইয়েমেনের হাউছি সম্প্রদায়।

দেশটির সশস্ত্র বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিয়া সারিয়ি বৃহস্পতিবার এক টেলিভিশন ভাষণে এ তথ্য জানিয়েছেন।তিনি বলেন, ইয়েমেনের সেনাবাহিনী ড্রোন ও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করে এডেন সাগরে দু’টি জাহাজ এমএসসি দিয়েগো এবং এমএসসি গিনায় হামলা চালিয়েছে। একইসাথে এমএসসি ভিট্টোরিয়া নামক আরেকটি জাহাজে ভারত মহাসাগরে একবার এবং আরব সাগরে আরেকবার হামলা চালানো হয়েছে।

জেনারেল সারিয়ি বলেন, ইয়েমেনের সশস্ত্র বাহিনী গাজা পরিস্থিতির দিকে গভীরভাবে নজর রাখছে। দখলদার সেনারা যতদিন গাজায় গণহত্যা অব্যাহত রাখবে ততদিন ইসরাইলের সাথে সংশ্লিষ্ট জাহাজগুলোতে হামলা চালিয়ে যাবে ইয়েমেনের সশস্ত্র বাহিনী।

গত বছরের ৭ অক্টোবর ইসরাইলি সেনারা গাজা উপত্যকায় ভয়াবহ আগ্রাসন ও গণহত্যা শুরু করার পর থেকে ইসরাইলি মালিকানাধীন ও ইসরাইলগামী বাণিজ্যিক জাহাজগুলোতে হামলা শুরু করে ইয়েমেনের হাউছি সম্প্রদায়।

তারা হুঁশিয়ারি দেয়, গাজা উপত্যকায় আগ্রাসন বন্ধ না করা পর্যন্ত সাগরে তাদের হামলা চলতে থাকবে। এখন পর্যন্ত ইয়েমেনের সশস্ত্র বাহিনী তাদের প্রতিশ্রুতিতে অটল রয়েছে। গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি আগ্রাসনে এখন পর্যন্ত প্রায় ৩৫ হাজার ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন যাদের বেশিরভাগ নারী ও শিশু। সূত্র : আরব নিউজ

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.