রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:০৩ পূর্বাহ্ন

শায়েস্তাগঞ্জে নিহতদের লাশ স্বজনদের নিকট হস্তান্তর

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ শায়েস্তাগঞ্জে দুটি বাস ও ট্রাকের ত্রিমুখী সংঘর্ষের ঘটনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ জনে। গতকাল শনিবার (১২ মার্চ) সকাল ১০ টার দিকে সিলেটের ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১১নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই ব্যক্তি মৃত্যুবরণ করেন। গতকাল শনিবার বিকালে হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলি ও শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসি অজয় চন্দ্র দেবসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সংঘর্ষের পর আহতরা রাস্তায় পড়ে থাকলেও হাইওয়ে থানা পুলিশ তাদের উদ্ধার করেনি। পরে শায়েস্তাগঞ্জ ও হবিগঞ্জ দমকল বাহিনী ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে। অনেকের হাত-পা কর্তন অবস্থায় রাস্তায় পড়ে থাকে। এদিকে সিলেটে ভর্তি আহত ওই যুবকের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিউরো সার্জারি বিভাগের সিইও ডা. সুকান্ত। তবে নিহত ব্যক্তির নাম পরিচয় জানা যায়নি। গত শুক্রবার দিবাগত রাত পৌনে ৩ টার দিকে আশংকাজনক অবস্থায় তাঁকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তির তথ্যে তাঁর কোন নাম পরিচয় লিপিবদ্ধ করা হয়নি।
এর আগে গত শুক্রবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার উলুকান্দি-বিরামচর সড়কের হাইওয়ে থানার সামনে সিলেট থেকে ঢাকাগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের সাথে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় অপর একটি বাস দ্রুত গতিতে আসলে ত্রিমুখী সংঘর্ষ সৃষ্টি হয়। সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই ৩ জন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনসহ মোট চারজনের মৃত্যু হয়। ঘটনার পরপরই উত্তেজিত জনতা সড়ক হাইওয়ে পুলিশের শাস্তির দাবিতে সড়ক অবরোধ করে রাখলে পুলিশ ২ রাউন্ড রাবার বুলেট ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালায়। কিন্তু নিয়ন্ত্রণ না হলে খবর পেয়ে হবিগঞ্জ, চুনারুঘাট, শায়েস্তাগঞ্জসহ বিভিন্ন থানার পুলিশ ও উর্ধ্বতন অফিসার ঘটনাস্থলে পৌঁছে ব্যবস্থা নেয়ার আশ^াস দিলে নিয়ন্ত্রণে আসে। গতকাল শনিবার দুপুরে সদর থানার পুলিশ আইন প্রক্রিয়া শেষে লাশগুলো পরিবারের জিম্মায় হস্তান্তর করে। শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি মাইনুল ইসলাম বিষয়টি অস্বীকার করে জানান, এ পর্যন্ত ৫ জন মারা গেছে। পুলিশ আহতদের সার্বক্ষনিক সহায়তা করে। বিক্ষুব্ধ জনতা যাত্রীদের মালামাল লুটপাটের চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশের সাথে বাকবিতন্ডা হয়।

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.