সোমবার, ১৭ Jun ২০২৪, ০২:১২ অপরাহ্ন

শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জংশনের সবগুলো রেলক্রসিং ঝুকিপূর্ণ ॥ দুর্ঘটনার আশঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ হবিগঞ্জের শাায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জংশনের সবগুলো রেলক্রসিং ঝুকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। ফলে বিভিন্ন দুর্ঘটনায় বাড়ছে নিহত ও আহতের সংখ্যা। হবিগঞ্জ জেলার শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জংশনের আওয়াতাধীন হরষপুর রেল ষ্টেশন থেকে সাটিয়াজুরী রেল ষ্টেশন পর্যন্ত রেল লাইনের ১৭টি অননুমোদিত ও ৩৩টি অনুমোদিত লেভেল ক্রসিং রয়েছে। অনুমোদিত সবগুলো লেভেল ক্রসিং দিনদিন ঝুকিপূর্ণ হয়ে পড়ছে। অনুমোদিত ১৭টি লেভেল ক্রসিংয়ের মধ্যে মাত্র ৬টি লেভেল ক্রসিংয়ে গেইটম্যান রয়েছে। এগুলো হল লস্করপুর, পুরানবাজার, তেলিয়াপাড়া, অলিপুর, শাহজিবাজার ও শায়েস্তাগঞ্জ। যেসব অনুমোদিত লেভেল ক্রসিংয়ে গেইটম্যান নেই সেগুলো হল হরষপুর, মনতলা, শাহপুর, ইটাখোলা, নোয়াপাড়া, ছাতিয়াইন, হবিগঞ্জ গ্যাস ফিল্ড, নরছতপুর। অনুমোদিত ও অননুমোদিত রেলক্রসিংয়ের মধ্যে বেশি ঝুকিপূর্ণ হচ্ছে লস্করপুর লেভেল ক্রসিং, পুরান বাজার লেভেল ক্রসিং, অলিপুর লেভেল ক্রসিং, নরছতপুর লেভেল ক্রসিং, নোয়াপাড়া লেভেল ক্রসিং, তেলিয়াপাড়া লেভেল ক্রসিং, মনতলা লেভেল ক্রসিং। এসব লেভেল ক্রসিংয়ে তিন শতাধিক দুর্ঘটনা ঘটেছে। এতে প্রায় দেড় শতাধিক লোক প্রাণ হারালেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কোন টনক নড়েনি। বিশেষ করে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শায়েস্তাগঞজ্ থানার অলিপুর, নছরতপুর ও লস্করপুর লেভেল ক্রসিং মৃত্যুফাদে পরিণত হয়েছে। মহাসড়ক নির্মাণের পর থেকে অলিপুর, নছরতপুর ও লস্করপুরে দুই শতাধিক দুর্ঘটনায় শতাধিক লোক নিহত এবং শতাধিক অহত হয়ে পঙ্গুত্ব বরণ করছে। সূত্র জানায়-ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক নির্মাণের প্রথমদিকে লস্করপুর ও অলিপুর ওভার ব্রিজ করার কথা থাকলেও পরে অজ্ঞাত কারণে ওই স্থানে ওভার ব্রিজ করা হয় নি। ফলে মহাসড়কের অলিপুর ও লস্করপুরে যে কোন সময় ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে। লেভেল ক্রসিংগুলোতে দুর্ঘটনার কারণ খুজতে গিয়ে সরজমিনে ঘুরে দেখা যায়, অনুমোদিত লেভেল ক্রসিংয়ে যে কয়টিতে গেইটম্যান রয়েছে তাদের দায়িত্বে অবহেলা, গেইট নষ্ট হয়ে ব্যবহারের অনুপযোগী ইত্যাদি কারণে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটছে। তবে কর্তব্যরত গেইটম্যানরা জানান-লেভেল ক্রসিং থেকৈ পার্শ্ববর্তী রেলষ্টেশনের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য কোন টেলিফোন নেই। যে কারণে কখন ট্রেন আসছে তা তারা জানতে পারছেন না। ফলে লেভেল ক্রসিংগুলোতে প্রতিনিয়ত ঘটছে মারাত্মক দুর্ঘটনা। সেবশনের অনুমোদিত ১৭টির মধ্যে ১১টি ও অননুমোদিত ৩৩টি লেভেল ক্রসিংয়ে কোন গেইটম্যান নেই। কর্তৃপক্ষ শুধু নোটিশ টা্িগয়েই তাদের দায়িত্ব শেষ করেছে। অথচ প্রতিদিন শত শত যানবাহন জীবনের ঝুকি নিয়ে রেলক্রষিং পার হচ্ছে। বর্তমানে লস্করপুর রেল ক্রসিং হবিগঞ্জ শহরের সঙ্গে বাইপাস সড়ক সংযোগ হওয়ার কারণে ব্যস্ত সড়ক হিসাবে পরিণত হওয়ায় এখানে যে কোন সময় ভয়াবহ দুর্ঘটনার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.