সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২:১৭ পূর্বাহ্ন

খবরের শিরোনাম:

সুসম্পর্ক রেখেই বাংলাদেশ সমুদ্রসীমা জয় করেছে: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ প্রতিবেশী দুই দেশের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখে বাংলাদেশ তার সমুদ্রসীমা জয় করতে পেরেছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ রোববার চট্টগ্রাম মেরিন ফিশারিজ একাডেমির ৪১তম ব্যাচের সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

এ সময় শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের দুটি প্রতিবেশী দেশ—ভারত ও মিয়ানমার। তাদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রেখেই আমরা কিন্তু এ অর্জনটা করেছি। এ সমুদ্র সৈকত অর্থনৈতিকভাবে আমাদের ব্যাপক কাজে লাগবে বলে আমি বিশ্বাস করি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গোপসাগর আমাদের জন্য শুধু না, আন্তর্জাতিক বাণিজ্যক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ। এখানে বিশাল সম্পদ রয়েছে। সেই সম্পদ আমাদের আহরণ করতে হবে। এখানে যেমন মৎস্য সম্পদ রয়েছে, ঠিক অন্যান্য সামুদ্রিক সম্পদও রয়েছে। সেগুলো আহরণ করে আমাদের অর্থনীতিকে আরও শক্তিশালী করতে পারব।’

সরকার প্রধান বলেন, ‘আমরা এরই মধ্যে এমডিজি খুব সাফল্যের সঙ্গে বাস্তবায়ন করেছি। আমরা এসডিজিও সাফল্যের সঙ্গে বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি। করোনার কারণে কিছুটা বাধাগ্রস্ত হয়েছে। কিন্তু আমরা এগিয়ে চলেছি। অর্থনৈতিকভাবে যথেষ্ট শক্তিশালী হয়ে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি।’

মেরিন ফিশারিজ অ্যাকাডেমির কথা উল্লেখ করে সরকার প্রধান বলেন, ‘আমরা আওয়ামী লীগ সরকারে আসার পর থেকে এই প্রতিষ্ঠানটিকে আরও উন্নত করার চেষ্টা করেছি। দুর্ভাগ্যজনক হলো পঁচাত্তরের পর যারা ক্ষমতায় এসেছিল তাঁরা এ দিকে তেমন নজর দেয়নি। ফলে নানা সমস্যায় জর্জরিত ছিল এ অ্যাকাডেমি।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। আমাদের অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য মাত্র সাড়ে তিন বছরে যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশকে গড়ে তুলেছিলেন। ১৯৭৪ সালে বঙ্গবন্ধুর প্রণীত আইনের মাধ্যমে বাংলাদেশ পরবর্তীতে সমুদ্রসীমা অর্জন করে।’

উল্লেখ্য, এবার মেরিন একাডেমি থেকে ৮৪ জন ক্যাডেট পাস করেছেন। ক্যাডেটদের স্বাধীনতা আদর্শ ও নীতি মেনে চলার নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

এই নিউজটি আপনার ফেসবুকে শেয়ার করুন

© shaistaganjerbani.com | All rights reserved.