ঢাকা ০৭:১৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

শায়েস্তাগঞ্জের ফুটপাত ফল ব্যবসায়ীদের দখলে, শিক্ষার্থীসহ জন দূর্ভোগ চরমে

সৈয়দ আজিজুর রহমান,শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ

শায়েস্তাগঞ্জের ফুটপাত ফলের দোকান বসিয়ে দখল করে নিয়েছে ফল ব্যবসায়ীরা। যার কারণে শায়েস্তাগঞ্জের পৌর শহর বাজারের সর্বত্রই লেগে থাকে যানজট। চলাচলের সুবিধার্থে সড়ক বর্ধিত করা হয়েছে। পথচারীদের সুবিধার্থে করা হয়েছে ফুটপাতও। তবে সবই যেন ব্যবসায়ীদের দখলে।

ফল সব্জিসহ বিভিন্ন সামগ্রীতে ভরে আছে রাস্তার দুপাশ। কর্তৃপক্ষের কোনো তদারকি না থাকায় এমন পরিস্থিতি বছরজুড়েই দেখা যায়।

সরেজমিনে দেখা যায়, দাউদনগর বাজার পয়েন্ট থেকে স্টেশন রোড পর্যন্ত রাস্তার দু’পাশের ব্যবসায়ীরা তাদের চাহিদামতো বাড়িয়ে বিভিন্ন সামগ্রী রেখে দখল করে নিয়েছে। পরিচালনা করছে বিভিন্ন ফল, সব্জি, চাড়া গাছ ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দোকান। এছাড়াও যেকোনো সময় বাজারের ভেতরে ট্রাক ঢুকিয়ে মালামাল খালাস করছেন ব্যবসায়ীরা।

ট্রাকের মালামাল খালাস করা নির্ধারিত সময় থাকলেও ব্যবসায়ীরা কোনোভাবেই তা মানছে না। কারণ কর্তৃপক্ষ নিরব নেই কোন তাদের অভিযান। তাদের ইচ্ছামতো মালামাল খালাস করছে। এতে সৃষ্টি হচ্ছে দীর্ঘ যানজটের।

ছোট যানবাহন সাইকেল, মোটরসাইকেল ও রিকশা-ভ্যান নিয়ে চলাচল করা যাচ্ছে না। বাজারের ভেতরে ডাক্তারের চেম্বার, ফার্মেসিতে যেতে পারছে না রোগী ও অ্যাম্বুলেন্স। এছাড়াও শায়েস্তাগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ও পথচারীরা রাস্তা পারাপার হতে সমস্যা হচ্ছে। ব্যবসায়ীদের এমন পরিস্থিতি দেখে সবাই ক্ষিপ্ত।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েক ব্যবসায়ী জানান, মেয়র ও প্রশাসন কিছু না বলায় আমরা সুবিধা পাচ্ছি। এজন্য ব্যবসা করছি। দীর্ঘদিন ধরে এভাবেই ব্যবসা করা হচ্ছে। বাজার করতে আসা মালেক হোসেন, আরিফ মিয়া, বাছির মিয়া ও সাদিয়া আক্তার বলেন, বাজারে কোনো কিছু কিনতে আসা অনেক কষ্টকর।

ব্যবসায়ীরা দিন দিন রাস্তা দখল করেই নিচ্ছে। উপজেলা প্রশাসন, পৌর কর্তৃপক্ষ ও জনপ্রতিনিধিরা এগুলো দেখেও দেখে না! সবাই ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। জনগণের সুবিধার্থে এগুলো উচ্ছেদ করে চলাচলের জন্য উপযোগী করা হোক।

ডাক্তারের কাছে রোগী নিয়ে যাওয়া আবু তাহের জানান, অসুস্থ বাবাকে নিয়ে ডাক্তারের চেম্বারে যাব। কিন্তু যানজটের কারণে যেতে খুবই কষ্ট হচ্ছে। সামনে ট্রাক দাঁড় করিয়ে মালামাল খালাস করছে ব্যবসায়ীরা।

শায়েস্তাগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শারমিন ও জহুর চাঁন বিবি কলেজের শিক্ষার্থী আকলিমা খাতুন জানান, বাজার রোড হয়ে আমাদের স্কুল-কলেজে যেতে হয়। রাস্তার দুই পাশের ব্যবসায়ীরা রাস্তা দখল করে ব্যবসা করার কারণে যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পৌঁছাতে দেরি হয়ে যায়।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ১১:১৯:৫৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ জুলাই ২০২৪
১০ বার পড়া হয়েছে

শায়েস্তাগঞ্জের ফুটপাত ফল ব্যবসায়ীদের দখলে, শিক্ষার্থীসহ জন দূর্ভোগ চরমে

আপডেট সময় ১১:১৯:৫৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ জুলাই ২০২৪

শায়েস্তাগঞ্জের ফুটপাত ফলের দোকান বসিয়ে দখল করে নিয়েছে ফল ব্যবসায়ীরা। যার কারণে শায়েস্তাগঞ্জের পৌর শহর বাজারের সর্বত্রই লেগে থাকে যানজট। চলাচলের সুবিধার্থে সড়ক বর্ধিত করা হয়েছে। পথচারীদের সুবিধার্থে করা হয়েছে ফুটপাতও। তবে সবই যেন ব্যবসায়ীদের দখলে।

ফল সব্জিসহ বিভিন্ন সামগ্রীতে ভরে আছে রাস্তার দুপাশ। কর্তৃপক্ষের কোনো তদারকি না থাকায় এমন পরিস্থিতি বছরজুড়েই দেখা যায়।

সরেজমিনে দেখা যায়, দাউদনগর বাজার পয়েন্ট থেকে স্টেশন রোড পর্যন্ত রাস্তার দু’পাশের ব্যবসায়ীরা তাদের চাহিদামতো বাড়িয়ে বিভিন্ন সামগ্রী রেখে দখল করে নিয়েছে। পরিচালনা করছে বিভিন্ন ফল, সব্জি, চাড়া গাছ ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দোকান। এছাড়াও যেকোনো সময় বাজারের ভেতরে ট্রাক ঢুকিয়ে মালামাল খালাস করছেন ব্যবসায়ীরা।

ট্রাকের মালামাল খালাস করা নির্ধারিত সময় থাকলেও ব্যবসায়ীরা কোনোভাবেই তা মানছে না। কারণ কর্তৃপক্ষ নিরব নেই কোন তাদের অভিযান। তাদের ইচ্ছামতো মালামাল খালাস করছে। এতে সৃষ্টি হচ্ছে দীর্ঘ যানজটের।

ছোট যানবাহন সাইকেল, মোটরসাইকেল ও রিকশা-ভ্যান নিয়ে চলাচল করা যাচ্ছে না। বাজারের ভেতরে ডাক্তারের চেম্বার, ফার্মেসিতে যেতে পারছে না রোগী ও অ্যাম্বুলেন্স। এছাড়াও শায়েস্তাগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ও পথচারীরা রাস্তা পারাপার হতে সমস্যা হচ্ছে। ব্যবসায়ীদের এমন পরিস্থিতি দেখে সবাই ক্ষিপ্ত।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েক ব্যবসায়ী জানান, মেয়র ও প্রশাসন কিছু না বলায় আমরা সুবিধা পাচ্ছি। এজন্য ব্যবসা করছি। দীর্ঘদিন ধরে এভাবেই ব্যবসা করা হচ্ছে। বাজার করতে আসা মালেক হোসেন, আরিফ মিয়া, বাছির মিয়া ও সাদিয়া আক্তার বলেন, বাজারে কোনো কিছু কিনতে আসা অনেক কষ্টকর।

ব্যবসায়ীরা দিন দিন রাস্তা দখল করেই নিচ্ছে। উপজেলা প্রশাসন, পৌর কর্তৃপক্ষ ও জনপ্রতিনিধিরা এগুলো দেখেও দেখে না! সবাই ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। জনগণের সুবিধার্থে এগুলো উচ্ছেদ করে চলাচলের জন্য উপযোগী করা হোক।

ডাক্তারের কাছে রোগী নিয়ে যাওয়া আবু তাহের জানান, অসুস্থ বাবাকে নিয়ে ডাক্তারের চেম্বারে যাব। কিন্তু যানজটের কারণে যেতে খুবই কষ্ট হচ্ছে। সামনে ট্রাক দাঁড় করিয়ে মালামাল খালাস করছে ব্যবসায়ীরা।

শায়েস্তাগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শারমিন ও জহুর চাঁন বিবি কলেজের শিক্ষার্থী আকলিমা খাতুন জানান, বাজার রোড হয়ে আমাদের স্কুল-কলেজে যেতে হয়। রাস্তার দুই পাশের ব্যবসায়ীরা রাস্তা দখল করে ব্যবসা করার কারণে যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পৌঁছাতে দেরি হয়ে যায়।