ঢাকা ০৮:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আজমিরীগঞ্জে সবজির দাম বেড়েই যাচ্ছে বিপাকে নিম্ন ও মধ্যবিত্তরা।

কনৌজ ব্যানার্জী, আজমিরীগঞ্জ (হবিগঞ্জ)প্রতিনিধি :

আজমিরীগঞ্জে দিন দিন বেড়েই চলেছে সবজির দাম। অধিকাংশ সবজির দাম বেড়েছে কেজিতে ২০ থেকে ২৫ টাকা পর্যন্ত।

এছাড়া টমেটোর দাম কেজিতে ৪০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকায়। মুখি ও ঝিঙা কেজিতে বেড়েছে ২০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১৯০ টাকা। এমনকি আলুর দামও বেড়েছে ১৫ টাকা। কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ৩১০ থেকে ৩২০ টাকায় এবং শশা ১১০ টাকা কেজিতে, অব্যাহত ভাবে সবজির দাম বাড়তে থাকায় বেকায়দায় পড়েছেন ক্রেতারা। বিশেষ করে সব বেশি বিপাকে পরে রয়েছে নিম্ন ও মধ্যে বৃত্ত আয়ের লোকেরা ।

বিশেষ করে নিত্য প্রয়োজনীয় আলুর দাম ৬০ থেক ৬৫, এবং পিঁয়াজ এর মূল্য ১০০ টাকা ধরে বিক্রি হচ্ছে যার ফলে বিপাকে পড়েছে নিম্ন ও মধ্যবিত্ত আয়ের লোকজন। নিম্নবৃত্ত আয়ের কয়েক জন লোকের সঙ্গে আলোচনা করলে তারা বলেন, পরিশ্রমের কাজ করে যা আয় করা হয় তা দিয়ে চলে না সবকিছুই উর্ধ্বমুখী এবার সবজির দাম বেশি নতুন করে চিন্তার কারন হিসেবে দাঁড়িয়েছে যা ডাল আনতে পান্তা পুরায় । এদিকে মধ্যবিত্তরা পরেছে বিপাকে যা আয় হয়, তা দিয়ে সীমিত এই আয় দিয়ে চলতে হয়, কাহার কাছে কষ্টের কথা ও বলা যায় না। আজমিরীগঞ্জের পাইকারি সবজি বাজারে গিয়ে দেখা যায়, তুলনামূলক সবজির সরবরাহ খুবই কম।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ১১:০২:১৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৬ জুলাই ২০২৪
১৮ বার পড়া হয়েছে

আজমিরীগঞ্জে সবজির দাম বেড়েই যাচ্ছে বিপাকে নিম্ন ও মধ্যবিত্তরা।

আপডেট সময় ১১:০২:১৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৬ জুলাই ২০২৪

আজমিরীগঞ্জে দিন দিন বেড়েই চলেছে সবজির দাম। অধিকাংশ সবজির দাম বেড়েছে কেজিতে ২০ থেকে ২৫ টাকা পর্যন্ত।

এছাড়া টমেটোর দাম কেজিতে ৪০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকায়। মুখি ও ঝিঙা কেজিতে বেড়েছে ২০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১৯০ টাকা। এমনকি আলুর দামও বেড়েছে ১৫ টাকা। কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ৩১০ থেকে ৩২০ টাকায় এবং শশা ১১০ টাকা কেজিতে, অব্যাহত ভাবে সবজির দাম বাড়তে থাকায় বেকায়দায় পড়েছেন ক্রেতারা। বিশেষ করে সব বেশি বিপাকে পরে রয়েছে নিম্ন ও মধ্যে বৃত্ত আয়ের লোকেরা ।

বিশেষ করে নিত্য প্রয়োজনীয় আলুর দাম ৬০ থেক ৬৫, এবং পিঁয়াজ এর মূল্য ১০০ টাকা ধরে বিক্রি হচ্ছে যার ফলে বিপাকে পড়েছে নিম্ন ও মধ্যবিত্ত আয়ের লোকজন। নিম্নবৃত্ত আয়ের কয়েক জন লোকের সঙ্গে আলোচনা করলে তারা বলেন, পরিশ্রমের কাজ করে যা আয় করা হয় তা দিয়ে চলে না সবকিছুই উর্ধ্বমুখী এবার সবজির দাম বেশি নতুন করে চিন্তার কারন হিসেবে দাঁড়িয়েছে যা ডাল আনতে পান্তা পুরায় । এদিকে মধ্যবিত্তরা পরেছে বিপাকে যা আয় হয়, তা দিয়ে সীমিত এই আয় দিয়ে চলতে হয়, কাহার কাছে কষ্টের কথা ও বলা যায় না। আজমিরীগঞ্জের পাইকারি সবজি বাজারে গিয়ে দেখা যায়, তুলনামূলক সবজির সরবরাহ খুবই কম।