ঢাকা ০৮:১৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

শাহবাগে মোবাইলের ফ্লাশলাইট জ্বালিয়ে কোটাবিরোধীদের প্রতিবাদ

শায়েস্তাগঞ্জের বাণী রিপোর্ট

নতুন ঘোষিত এক দফা কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি গুটিয়ে শাহবাগ মোড়ে জড়ো হয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণার লক্ষ্যে শিক্ষার্থীরা আজকের মতো রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় ব্লকেড সমাপ্ত ঘোষণা করে শাহবাগে অবস্থান নিয়েছেন। এ সময় তারা মোবাইলের ফ্লাশলাইট জ্বালিয়ে কোটাব্যবস্থার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেন।

সোমবার রাত ৮টায় শিক্ষার্থীরা রাজধানীর কাঁটাবন, মৎস্যভবন, চানখারপুল, বাংলামোটর, কারওয়ান বাজার, ফার্মগেট থেকে আন্দোলনের প্রাণকেন্দ্র শাহবাগে জড়ো হন। রাত সাড়ে ৭টায় সায়েন্সল্যাব মোড় অবরোধ ছাড়েন ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা।

এর আগে, বিকাল সাড়ে ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে হাইকোর্ট কর্তৃক প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটাসহ ৫৬ শতাংশ কোটা পুনর্বহালের আদেশের বিরুদ্ধে আন্দোলনের ৮ম দিনে এই কর্মসূচির জন্য জড়ো হন শিক্ষার্থীরা।

পরে বিশাল মিছিল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ স্থান প্রদক্ষিণ করে বিকাল সোয়া ৪টায় তারা শাহবাগে এসে জড়ো হন।

শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নিয়ে শিক্ষার্থীরা, একাত্তরের পথ ধরো, বাংলা ব্লকেড সফল করো’, ব্লকেড ব্লকেড, বাংলা ব্লকেড’, ‘দফা এক দাবি এক, কোটা নট কাম ব্যাক’, ‘সংবিধানের/মুক্তিযুদ্ধের মূলকথা, সুযোগের সমতা’, ‘সারা বাংলায় খবর দে, কোটা প্রথার কবর দে’, ‘দালালি না রাজপথ, রাজপথ রাজপথ,’ ‘আঠারোর হাতিয়ার, গর্জে উঠুক আরেকবার”, ‘জেগেছে রে জেগেছে, ছাত্রসমাজ জেগেছে’, ‘লেগেছে রে লেগেছে, রক্তে আগুন লেগেছে’, ‘কোটা প্রথা, বাতিল চাই বাতিল চাই’, ‘কোটা প্রথার বিরুদ্ধে, ডাইরেক্ট অ্যাকশন’, ‘কোটা না মেধা, মেধা মেধা’, ‘আপস না সংগ্রাম, সংগ্রাম সংগ্রাম’, ‘মুক্তিযুদ্ধের বাংলায়, বৈষম্যের ঠাই নাই’- ইত্যাদি স্লোগান দিতে থাকেন।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৯:৩৪:৪০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪
৫ বার পড়া হয়েছে

শাহবাগে মোবাইলের ফ্লাশলাইট জ্বালিয়ে কোটাবিরোধীদের প্রতিবাদ

আপডেট সময় ০৯:৩৪:৪০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪

নতুন ঘোষিত এক দফা কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি গুটিয়ে শাহবাগ মোড়ে জড়ো হয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণার লক্ষ্যে শিক্ষার্থীরা আজকের মতো রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় ব্লকেড সমাপ্ত ঘোষণা করে শাহবাগে অবস্থান নিয়েছেন। এ সময় তারা মোবাইলের ফ্লাশলাইট জ্বালিয়ে কোটাব্যবস্থার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেন।

সোমবার রাত ৮টায় শিক্ষার্থীরা রাজধানীর কাঁটাবন, মৎস্যভবন, চানখারপুল, বাংলামোটর, কারওয়ান বাজার, ফার্মগেট থেকে আন্দোলনের প্রাণকেন্দ্র শাহবাগে জড়ো হন। রাত সাড়ে ৭টায় সায়েন্সল্যাব মোড় অবরোধ ছাড়েন ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা।

এর আগে, বিকাল সাড়ে ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে হাইকোর্ট কর্তৃক প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটাসহ ৫৬ শতাংশ কোটা পুনর্বহালের আদেশের বিরুদ্ধে আন্দোলনের ৮ম দিনে এই কর্মসূচির জন্য জড়ো হন শিক্ষার্থীরা।

পরে বিশাল মিছিল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ স্থান প্রদক্ষিণ করে বিকাল সোয়া ৪টায় তারা শাহবাগে এসে জড়ো হন।

শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নিয়ে শিক্ষার্থীরা, একাত্তরের পথ ধরো, বাংলা ব্লকেড সফল করো’, ব্লকেড ব্লকেড, বাংলা ব্লকেড’, ‘দফা এক দাবি এক, কোটা নট কাম ব্যাক’, ‘সংবিধানের/মুক্তিযুদ্ধের মূলকথা, সুযোগের সমতা’, ‘সারা বাংলায় খবর দে, কোটা প্রথার কবর দে’, ‘দালালি না রাজপথ, রাজপথ রাজপথ,’ ‘আঠারোর হাতিয়ার, গর্জে উঠুক আরেকবার”, ‘জেগেছে রে জেগেছে, ছাত্রসমাজ জেগেছে’, ‘লেগেছে রে লেগেছে, রক্তে আগুন লেগেছে’, ‘কোটা প্রথা, বাতিল চাই বাতিল চাই’, ‘কোটা প্রথার বিরুদ্ধে, ডাইরেক্ট অ্যাকশন’, ‘কোটা না মেধা, মেধা মেধা’, ‘আপস না সংগ্রাম, সংগ্রাম সংগ্রাম’, ‘মুক্তিযুদ্ধের বাংলায়, বৈষম্যের ঠাই নাই’- ইত্যাদি স্লোগান দিতে থাকেন।